স্বার্থ যত পূর্ণ হয়, লোভ ক্ষুধানল তত তার বেড়ে ওঠে।

এই পৃথিবীতে বহু স্বার্থন্বেষী মানুষজন বসবাস করে। তারা কেবল নিজের স্বার্থের কথাই ভাবে। যতই তাদের স্বার্থ পূরণ হোক না কেন তাদের লোভ বেড়েই চলে ।আসলে তাদের ভোগস্পৃহা ও অর্থলালসার শেষ নেই। তারা যত পায় তত চায় । মন তাদের যেন ফুটো পাত্রের মতো , কিছুতেই তাদের চাওয়া পূর্ণ হয় না। সেই পাত্রে যতই সম্পদের জল ঢালা হোক না তা কখনোই পূর্ণ হবার নয় ।এই সীমাহীন চাহিদা ও ভোগবাসনার বশবর্তী মানুষের উপর যে রিপুটি ভর করে তার নাম লোভ ।

যত দিন যাচ্ছে এই পৃথিবীর মানুষ ততোই লোভী হয়ে উঠছে ।কিছুতেই তারা তাদের ইচ্ছা পূরণ করতে পারছে না। কারন একটা ইচ্ছা পুরন হবার পর অন্য এক ইচ্ছা তাদের মনে আসছে। লোভের বসেই ধনী-দরিদ্রের শেষ সম্বল টুকু গ্রাস করতে উদ্যত হয়। লোভ তাদেরই বেশি আছে যাদের প্রয়োজনের তুলনায় বেশি আছে । এই লোভের বশেই বিবেকবান মানুষেরা বিবেক বুদ্ধি হারিয়ে ফেলে। সংসারের সকল অশান্তি ও অকল্যাণের মূলে আছে বিত্তবান মানুষের অতিরিক্ত অর্থলোলুপতা ।

মানুষের অতিরিক্ত লোভের জন্যই শান্তিময় পৃথিবী অশান্তিতে ভরে যাচ্ছে । লোভের জন্যই মানুষে মানুষে জাগছে বিরোধ। তাই প্রতিটি মানুষের উচিত লোভ ত্যাগ করে স্বার্থত্যাগী হওয়া । যদি মানুষ স্বার্থত্যাগী হয় তাহলে এই পৃথিবীতে আর কোনো সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বা বিরোধ হবে না । তখন এই পৃথিবী হয়ে উঠবে শান্তিময় এবং একে অপরের স্বার্থের কথা চিন্তা করবে । এর ফলে প্রকৃত পক্ষে সকলের স্বার্থই সিদ্ধ হবে।

Related Posts

Facebook
WhatsApp
Twitter
Telegram
Scroll to Top