তরীখানা বাইতে গেলে মাঝে মাঝে তুফান মেলে/ তাই বলে হাল ছেড়ে দিয়ে কান্নাকাটি করবো না।

নদী বা সমুদ্র বা অন্য কোন জলপথ পারাপার হবার জন্য নৌকারি ব্যবহার হয়ে আসছে ।এই জলপথ পার হওয়ার সময় মাঝে মাঝে ঝড়, বৃষ্টি ও বৃহত্তর তুফানের সম্মুখীন হতে হয়। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে শক্ত করে হাল ধরে নদী, বা সমুদ্রই পার হয়ে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। ঝাড় বা তুফানের সময় ভয়ে হাল ছেড়ে কান্নাকাটি করা কখনোই বুদ্ধিমত্তার পরিচয় নয়। এবং তুফানের সময় শক্ত হাতে তার মোকাবিলা করা কর্তব্য ।

জীবন প্রবাহমান এবং জীবন পথে চলতে গেলে নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। জীবনে চলার পথ কখনোই মসৃণ নয়। এই পথ বাঁধাবন্ধের দ্বারা আবৃত এবং জীবনের মোক্ষ কে পেতে গেলে এই বাধাবন্ধের মধ্যে দিয়েই পেতে হয় । জীবনের আনন্দময় মুহূর্ত গুলি পাশাপাশি রয়েছে অসহ্য দুঃখ-কষ্ট-,বেদনা না পাওয়ার যন্ত্রনা।এর সঙ্গে সঙ্গে আছে বিপদ ও অসহিষ্ণুতা । আর এই সব কিছু জীবনকে আরো বেশি করে সংগ্রহ সংগ্রামময় ও দুরহ কষ্টদায়ক করে তোলে। জীবন গোলাপ ফুলের বিছানা নয় তা বারবার প্রমাণিত করে এইসব সংগ্রাম ও দুঃখ। ফলে জীবনে বারবার আসে ব্যর্থতা যা জীবনকে ক্রমশ নিরস ও দুঃখময় করে গড়ে তোলে ।

কিন্তু এই দুঃখ ,ব্যর্থতা ও যন্ত্রণার ভযয়ে হাল ছেড়ে দিয়ে কর্মবিমুখ হলে চলবে না। বরং জীবনের চরম ব্যর্থতা ও চড়াই উতরাই পথের উপর দিয়ে হেঁটে গিয়ে সাফল্য অর্জন করতে হবে । এই চরম ব্যর্থতা কে পিছনে ফেলে কঠিন বিপদ সংকুল চড়াই-উৎরাই দিয়ে হেঁটে গিয়েই বিজয়লক্ষ্মী বরমাল্য জয় করে নিতে হবে এবং এই ভাবেই তা সম্ভব।

Show Your Love
Print Friendly, PDF & Email

Related Posts

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
WhatsApp
Twitter
Telegram
Scroll to Top